সাধারন জ্ঞান

থানায় কিভাবে জিডি করবেন ? সহজ নিয়মগুলো জেনে রাখুন উপকারে আসবে।

ধরেন কেউ আপনাকে বিভিন্ন ধরনের হয়রানিমূলক হুমকি-ধুমকি বা অন্যায় অত্যাচার, করে আসছে। অথবা আপনার প্রিয় বস্তুটি হারিয়ে অথবা চুরি হয়ে গিয়েছে, তখন আপনি কি করবেন? কোন মাধ্যমে থানায় জিডি করবেন, অথবা ঘরে বসেই অনলাইন সেবার মাধ্যমে থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করবেন।  তাই খুব সহজে  থানায় একটি  জিডি  করতে পারবেন ,কারো সাহায্য ছাড়াই। সেই সম্পর্কে নিম্নে আলোকপাত করা হলো-থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন http://daliatista.com

আসুন জেনে নেই জিডি কি? এবং জিডি করার নিয়ম

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-বর্তমান সময়ে আমরা অনেক সময় আমাদের প্রিয় অপ্রয়োজনীয় জিনিস যেমন মোবাইল ফোন পাসপোর্ট এনআইডি কার্ড ব্যাংকিং কার্ড ও এটিএম কার্ড ইত্যাদি হারিয়ে ফেলি এর জন্য আমাদের  থানায় জিডি করতে হয়। 

জিডি কি ? কাকে বলে?

 জিডির অর্থ  ইংরেজি শব্দ  বাংলায় (সাধারণ ডায়েরি)।  আমরা যদি ডায়েরি সম্পর্কে বলতে যাই তাহলে এর অর্থ হচ্ছে থানায় কোন আইনি সহায়তা পাওয়ার জন্য একজন ব্যক্তির মাধ্যমে সকল তথ্য উপাত্ত বর্ণনা করে জিডি করতে হয়।সেখানে আপনি কি ধরনের সেবা পেতে চান তার একটি বিশদ বিবরণী দেওয়া থাকে এক্ষেত্রে আপনাকে আপনার কাঙ্খিত বিষয়বস্তুটির উপর কোন কিছু হারিয়ে যাওয়া বা হুমকি মূলক রক্ষা পেতে ইত্যাদি কারণে থানায় জিডি করা যেতে পারে।

থানায় জিডি  কেন করবেন? 

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-আপনারা হয়তো উপরে উল্লেখিত বর্ণনায় বুঝতে পেরেছেন কেন থানায় জিডি করবেন? যারা জানেন না থানায় কিভাবে জিটি করতে হয় তাদের উদ্দেশ্যে আমি বলতে চাই? আপনি যেকোনো ধরনের আইনি সহায়তা পেতে আপনাকে   আপনার উপজেলায় নিকটস্থ থানায় একটি সাধারণ  ডায়েরি জমা দিতে পারেন।

আমরা অনেক সময় দেখি ও ভাবি ভবিষ্যতে কোন কিছু হতে পারে বা কিছু হবে সেটা আপনি আন্দাজ করতে পারেন সে ক্ষেত্রে আপনি থানায় সাধারণ ডায়েরি জমা দিয়ে থাকি। 

ধরুন আপনাকে কেউ বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য হানিকর হুমকি দিচ্ছে, আপনি চাইলে সেই ব্যক্তির নামে থানায় একটি জিডি করে রাখতে পারেন । যা পরবর্তী সময়ে আপনার কোন ধরনের সমস্যা হলে  বা আপনি নিরাপদ থাকার জন্য  থানা সাধারণ ডায়েরি করবেন।

আমরা অনেক সময় আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র হারিয়ে ফেলে থাকি। সেক্ষেত্রে আমি যেন পরবর্তীতে কোন সমস্যার সম্মুখীন না হই সেজন্য আমরা থানায় জিডি করতে পারি। এ বিষয়টি আমরা অনেকেই জানিনা এ বিষয়ে সম্পর্কে 

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-যেমন ধরেন- মোবাইল ফোন, পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয় পত্র, ব্যাংকের বিভিন্ন কাগজপত্র, এটিএম কার্ড সহ আরো অনেক প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র হারিয়ে ফেলি। এমত অবস্থায় আপনি যদি থানা একটি সাধারণ ডায়েরি করতে পারেন। 

উপরিক্ত আলোচনা দ্বারা আশা করা যায় যে আপনারা কিভাবে থানায় জিডি করবেন এবং কেন করবেন সে সম্পর্কে আপনারা অবগত হলেন এবং আশা করি আপনারা এ বিষয়টি আরো ভালোভাবে বুঝেছেন।

থানায় কিভাবে জিডি করবেন

থানায় জিডি করার নিয়ম

 আইনি সহায়তা নিতে চান তাহলে আপনি থানায় জিডি করতে পারেন আর এই থানায়  জিডি করার ক্ষেত্রে আপনি চাইলে দুইটি মাধ্যমে জিডি করতে পারেন। 

  • সরাসরি থানায় গিয়ে  জিডি করবেন
  •  অনলাইনের মাধ্যমে জিডি করবেন

তাই চলুন থানায় জিডি করতে কি কি নিয়ম অনুসরণ করতে হয় তা নিম্নে দেখে নেই।

  • আপনি একটি জিনিসপত্র হারিয়ে ফেলেছেন ?  তাহলে থানায় জিডি করতে গেলে অবশ্যই আপনাকে নিজের উপজেলায় যে থানাটি আছে সেখানেই যেয়ে জিডি করতে হবে।
  • আপনার প্রিয় বস্তুটি হারিয়ে যাওয়া কখন কোথায় কিভাবে হারিয়ে ফেলেছেন এই বিষয়টি জিডিতে উল্লেখ করতে ভুলবেন না।
  • আপনি সুন্দরভাবে  একটি আবেদনপত্র তৈরি করে ফেলবেন, তবে মনে রাখবেন অবশ্যই আপনার হাতের লেখা যেন স্পষ্ট হয়। অথবা আপনি একটি কম্পিউটার কম্পোজের দোকানে যেয়ে কম্পিউটার প্রিন্ট করে থানায় জমা দিতে পারেন।
  • মনে রাখবেন থানার দায়িত্ব রত কর্মকর্তা কর্মচারী পুলিশ যেন আপনার সাথে যোগাযোগ সহজে সংস্থাপন করতে পারে সে ক্ষেত্রে মোবাইল নাম্বার ও আপনার ঠিকানা উল্লেখ করতে ভুলবেন না।
  • থানায় জিডি করার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই সেখানে  সশরীরে উপস্থিত থাকতে হবে।
  •  অতঃপর আপনাকে থানায় একটি আবেদন পত্র জমা দিতে হবে যেখানে পুলিশ ইনচার্জ এর উদ্দেশ্যে একটি আবেদন পত্র লিখবেন এবং আপনার জিডির সকল তথ্যাবলী উল্লেখ করতে হবে।

অনলাইনের মাধ্যমে থানায় জিডি করার নিয়ম

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তির যুগ আপনি ইচ্ছা করলেই  ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে থানায় জিডি করতে পারেন। বিভিন্ন রকম জটিলতার হাত থেকে রেহাই পেতে আপনি ইচ্ছা করলেই অনলাইন এর মাধ্যমে থানায় জিডি করতে পারেন আর এর জন্য আপনার খুব বেশি সময় লাগবে না। মাত্র পাঁচ মিনিটেই আপনি থানায় জিডি করতে পারবেন। অনলাইনে জিডি করার নিয়ম খুবই সহজ যে কেউ চাইলে অল্প সময়ের ব্যবধানে নিমিষেই অনলাইনে জিডি করতে পারেন।

অনলাইনে জিডি করতে রেজিস্ট্রেশন যেভাবে করবেন?

 প্রথমে আপনাকে অনলাইনে জিডি করতে গেলে বাংলাদেশ পুলিশ এর ওয়েবসাইটে আপনাকে প্রবেশ করতে হবে। অনলাইনে জিডি করার জন্য https://gd.police.gov.bdএই ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করতে হবে।  অতঃপর অনলাইন এর মাধ্যমেই আপনি এখান থেকে রেজিস্ট্রেশন করে আপনি অতি সহজেই থানায় জিডি করতে পারবেন। http://progressbangladesh.com

থানায় জিডির আবেদন পত্র লেখার নিয়মাবলী

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-জিডি করার নিয়মটি অত্যন্ত সহজ ও প্রাণবন্ত যা আপনি সহজেই থানায় জিডি করতে সক্ষম হবেন। আপনি ইতিপূর্বে অনেক পত্র লেখায় অভ্যস্ত হয়েছেন যা এ ব্যাপারে পাঠ্যপুস্তকে নানা রকমের বিষয়বস্তু উল্লেখ থাকে যা আপনাকে থানায় জিডি করার লেখার নিয়মটি বর্ণনা করা হলো।

  •  আপনার পরিচয় সম্পর্কে বর্ণনা করতে হবে
  •  আপনি যে বিষয়টি হারিয়ে ফেলেছেন অথবা কারো মাধ্যমে হয়রানীর স্বীকার হচ্ছেন, সে সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে লিখতে হবে
  •  আপনি যে বিষয়টির উপরে জিডি করতে চাচ্ছেন সেই বিষয়টির উপর বিস্তারিত তথ্য লিখতে হবে।

মোবাইল ফোন হারিয়ে গেলে যেভাবে জিডি করবেন ?

জিডি দরখাস্ত করার আবেদনপত্রের নমুনা কপি

 তারিখঃ  ২৭-০৯-২০২৩ ইং ( আপনি যেদিন আবেদন করবেন সেই দিনে তারিখ এইখানে উল্লেখ করতে হবে) .

বরাবর,

 অফিস ইনচার্জ

 ডিমলা থানা,নীলফামারী। 

(এক্ষেত্রে আপনার নিজের থানার নাম ও জেলা উল্লেখ করবেন)

বিষয়ঃ সাধারণ  ডায়েরি করার আবেদন প্রসঙ্গে

জনাব,

 বিনীত নিবেদন এই যে আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী নামঃ……………………………. ,জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর …………………………….বয়স…………….. পিতা/ স্বামী…………………….. ওয়ার্ড,……………………. থানা, …………………জেলা……………… এই মর্মে জানাচ্ছি যে আমার নিম্ন বর্ণিত জিনিস আজ/ গতকাল……………  ইং তারিখ……. সময়…………যাওয়া থেকে হারিয়ে গিয়েছে।

আমার হারানো বস্তুটি একটি মোবাইল ফোন। কোম্পানির নাম শাওমি এর মডেল নাম্বার………………………………. মোবাইলটি রং…………………. এর আই ই মি নাম্বার………………। মোবাইলটিতে আমার অতি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উপাত্ত ও আত্মীয়-স্বজন নানা পরিচিত জনের ফোন নম্বর রয়েছে। এছাড়াও আমার এই ফোনটিতে জিমেইল অ্যাকাউন্ট লগইন করা রয়েছে এখানে আমার সকল যাবতীয় ব্যক্তিগত ছবি নোট এর মধ্যে রয়েছে। ফোনটি যদি কোন অসৎ ব্যক্তির হাতে পড়ে এবং তা দিয়ে যদি কোন অপরাধ সংগঠিত হয় তা নিয়ে আমি ভীষণভাবে চিন্তিত।  

অতএব,মহোদয়ের নিকট আবেদন আমার বিষয়টি সাধারণ ডায়েরিভুক্ত করে উপযুক্ত আইনানব ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য  সবিনয় অনুরোধ করছি।

বিনীত নিবেদক

নামঃ. ………………………….

পিতাঃ/স্বামী……………………..

মাতাঃ……………………………

বর্তমান ঠিকানা…………………

স্থায়ী ঠিকানাঃ……………….…..

উপজেলাঃ………………………

জেলাঃ………………………..…

মোবাইল নম্বরঃ…………………

পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে থানায় জিডি করবেন যেভাবে

একটি ব্যক্তি যখন পাসপোর্ট করে তখন তার কাছে এটি অনেক মূল্যবান কারণ এই পাসপোর্ট ছাড়া কোন ব্যক্তি বিদেশে গমন করতে সক্ষম হয় না । তাই বিদেশে গমন করার পূর্ব শর্ত হচ্ছে পাসপোর্ট করা আর যদি এই পাসপোর্টটি হারিয়ে যায় তাহলে অবশ্যই আপনাকে থানায় জিডি করার সাপেক্ষে পুনরায় আপনি পাসপোর্ট পেতে সক্ষম হবেন।

তারিখঃ  ………………………………..

বরাবর,

 অফিসার ইনচার্জ

 ডিমলা থানা,নীলফামারী। 

(এক্ষেত্রে আপনার নিজের থানার নাম ও জেলা উল্লেখ করবেন)

বিষয়ঃ সাধারণ  ডায়েরি করার আবেদন প্রসঙ্গে

জনাব,

 বিনীত নিবেদন এই যে আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী নামঃ……………………………. ,জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর …………………………….বয়স…………….. পিতা/ স্বামী…………………….. ওয়ার্ড,……………………. থানা, …………………জেলা……………… এই মর্মে জানাচ্ছি যে আমার নিম্ন বর্ণিত জিনিস আজ/ গতকাল……………  ইং তারিখ……. সময়…………যাওয়া থেকে হারিয়ে গিয়েছে।

আমার হারানো বস্তুটি ই পাসপোর্ট আমি গত……………… ইং তারিখে ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করি সকল প্রক্রিয়া শেষ হলে ……………………..ইং তারিখে নীলফামারী পাসপোর্ট অফিস থেকে ই পাসপোর্টটি ডেলিভারি দেওয়া হয় পাসপোর্টটি পাসপোর্ট নাম্বার……………….। ব্যক্তিগত নং……………….. পাসপোর্টটির পৃষ্টা সংখ্যা ৬৪। মেয়াদ ১০ বছর। তারিখ………………..ইং  পর্যন্ত। পাসপোর্টটিতে কোন দেশের ভিসা নেই/ পাসপোর্টটিতে……………….. দেশের ভিসা রয়েছে। এই পাসপোর্টটি আমার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ,এছাড়াও আমার এই পাসপোর্টটি  যদি কোন অসৎ ব্যক্তির হাতে পড়ে  কিনা সেজন্য আমি খুবই শঙ্কিত ও চিন্তিত।  তাই পাসপোর্টটি হারিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে থানায় অবগত করতে এসেছি আবেদনপত্রের সাথে আমার পাসপোর্ট এর পরিচয় পাতার দুটি ফটোকপি সংযুক্ত করেছি।

 অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন আমার বিষয়টি সাধারণ ডায়েরিভুক্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

বিনীত নিবেদক

নামঃ. ………………………….

পিতাঃ/স্বামী……………………..

মাতাঃ……………………………

বর্তমান ঠিকানা…………………

স্থায়ী ঠিকানাঃ……………….…..

উপজেলাঃ………………………

জেলাঃ………………………..…

মোবাইল নম্বরঃ…………………

আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে থানায় জিডি  যেভাবে করবেন ?

প্রতিটা ব্যক্তির পরিচয় হচ্ছে তার নিজস্ব আইডি কার্ড । এই আইডি কার্ড ছাড়া কোথাও কোন ধরনের সেবা পাওয়া সম্ভবপর হয় না। তাই আপনার মূল্যবান আইডি কার্ডটি হারিয়ে গেলে অবশ্যই থানায় জিডি করতে হবে।তাহলে হারিয়ে যাওয়া কার্ডটি পাবেন।

তারিখঃ  ………………………………..

বরাবর,

 অফিসার ইনচার্জ

 ডিমলা থানা,নীলফামারী। 

(এক্ষেত্রে আপনার নিজের থানার নাম ও জেলা উল্লেখ করবেন)

বিষয়ঃ সাধারণ  ডায়েরি করার আবেদন প্রসঙ্গে

জনাব,

 বিনীত নিবেদন এই যে আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী নামঃ……………………………. ,জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর …………………………….বয়স…………….. পিতা/ স্বামী…………………….. ওয়ার্ড,……………………. থানা, …………………জেলা……………… এই মর্মে জানাচ্ছি যে আমার নিম্ন বর্ণিত জিনিস আজ/ গতকাল……………  ইং তারিখ……. সময়…………যাওয়া থেকে হারিয়ে গিয়েছে।

আমার হারানো বস্তুটি একটি আইডি কার্ড। আমি বর্তমানে……………… কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র হিসেবে  অধ্যায়নরত আছি। আমার হারানো আইডি কার্ডটি উক্ত প্রতিষ্ঠানের সাথে আমার সংশ্লিষ্টতা প্রমাণ করে। আমার ছাত্রত্ব প্রমাণের জন্য এটি একটি নিয়ামক। দৈনন্দিন কাজে আমার আইডি কার্ডটির প্রয়োজন হয়ে থাকে।  কিন্তু আইডি কার্ডটি হারিয়ে যাওয়ায় আমি নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি। এছাড়াও আমার আইডি কার্ডটি কোন অবৈধ কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট  হতে পারে বলে, আমি শংকিত আছি । তাই থানায় এ বিষয়ে অবগত করতে এসেছি । আবেদনপত্রের সাথে আমার আইডি কার্ডের ফটোকপি সংযুক্ত করেছি।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন আমার বিষয়টি সাধারণ ডায়েরিভুক্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

বিনীত নিবেদক

নামঃ. ……………………………

পিতাঃ/স্বামী…………………….

মাতাঃ…………………………….

বর্তমান ঠিকানা…………………

স্থায়ী ঠিকানাঃ……………….…..

উপজেলাঃ………………………

জেলাঃ………………………..…

মোবাইল নম্বরঃ…………………

সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে থানায় জিডি করার নিয়ম ?

থানায়-কিভাবে-জিডি-করবেন-আমরা অনেক সময় নিজের বা অন্যের মূল্যবান সার্টিফিকেট হারিয়ে ফেলি আর এটি তোলার জন্য অনেক হয়রানির শিকার হতে হয়। তারপরে থানার জিডি কবি ছাড়া সার্টিফিকেট উত্তোলন করা সম্ভব হয় না তাই আপনি কিভাবে সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে থানায় জিডি করবেন নিম্নে দেওয়া হলো।

তারিখঃ  ………………………………..

বরাবর,

 অফিসার ইনচার্জ

 ডিমলা থানা,নীলফামারী। 

(এক্ষেত্রে আপনার নিজের থানার নাম ও জেলা উল্লেখ করবেন)

বিষয়ঃ সাধারণ  ডায়েরি করার আবেদন প্রসঙ্গে

জনাব,

 বিনীত নিবেদন এই যে আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী নামঃ……………………………. ,জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর …………………………….বয়স…………….. পিতা/ স্বামী…………………….. ওয়ার্ড,……………………. থানা, …………………জেলা……………… এই মর্মে জানাচ্ছি যে আমার নিম্ন বর্ণিত জিনিস আজ/ গতকাল……………  ইং তারিখ……. সময়…………যাওয়া থেকে হারিয়ে গিয়েছে।

 আমার হারানো বস্তুটি সার্টিফিকেট। আমি আমার ২০২৩ সালের এসএসসি মাধ্যমিক পরীক্ষার সার্টিফিকেট। হারিয়ে যাওয়ার সময় সার্টিফিকেটটি একটি সবুজ রঙের ফাইলে আবদ্ধ ছিল । ফাইলের ভিতরে আরও চারটি ফটোকপি ছিল। সার্টিফিকেট আমার নাম………………….। আমার পিতার নাম………………… আমার মাতার নাম………………………………….। সার্টিফিকেটের সিরিয়াল নাম্বার………………… ,রেজিস্ট্রেশন নাম্বার………………………, রোল নাম্বার…………………….। শিক্ষা জীবনে আমার এই সার্টিফিকেটটি অনেক  মূল্যবান হওয়ায়, তাই আমি হারানোর পর যত দ্রুত সম্ভব এ ব্যাপারে থানায় অবগত করতে এসেছি আবেদন পত্রের সাথে সার্টিফিকেট দুইটি ফটোকপি সংযুক্ত করেছি ।

 অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন আমার বিষয়টি সাধারণ ডায়েরিভুক্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

বিনীত নিবেদক

নামঃ. ………………………….

পিতাঃ/স্বামী……………………..

মাতাঃ……………………………

বর্তমান ঠিকানা…………………

স্থায়ী ঠিকানাঃ……………….…..

উপজেলাঃ………………………

জেলাঃ………………………..…

মোবাইল নম্বরঃ…………………

শেষ কথাঃ

এতক্ষণ আমি উপরোক্ত আলোচনা দ্বারা আপনাদের বোঝাতে সক্ষম হয়েছি যে কোন ব্যক্তির প্রয়োজনীয় বস্তু হারিয়ে গেলে অথবা কারো মাধ্যমে হয়রানির শিকার হলে কিভাবে থানায় জিডি করতে হবে সে সম্পর্কে আপনাদের অবগত করেছি আশা করি আপনারা আমার এই কনটিনটি ভালোভাবে পড়তে পারলে আপনার ভবিষ্যতে অনেক কাজে লাগবে। তাই আজকের মত এখানেই শেষ করছি সবাই ভালো থাকবেন এবং ভালো থাকার চেষ্টা করবেন এই আশাবাদ ব্যক্ত  রেখেই সমাপ্ত টানছি খোদাহাফেজ। 

 

admin

মোঃ শফিকুল ইসলাম লেবু (Lecturer) ডালিয়া, ডিমলা, নীলফামারী। আমি বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে কন্টেইন ও ব্লগিং পোষ্ট করে থাকি, এ ব্যাপারে পাঠকগন মতামত দিলে - যথাসম্ভব উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *