চিত্র বিনোদন

বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন –

বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন- এজন্য বক্তব্য হয়ে ওঠে একটা অনুষ্টানের অবিচ্ছেদ্য অংশ। অনেকে প্রথম ও শেষের অংশটুকু বলতে পারলেও  পুরা বক্তক্য কিভাবে প্রদান করবেন সে ব্যাপারে অনেকে দ্বিধা দ্বন্দ্বে পড়ে যায়। 

 বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন- তাই যারা নতুন ও যারা বক্তব্য একটু একটু বলতে পারেন, তাদের জন্য আমার আজকের কন্টেইন। বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন – তা ধাপে ধাপে আলোচনা করব নিস্নে বক্তব্য দেওয়ার সেরা টেকনিক প্রদান করা হলো- বক্তব্য  কিভাবে শুরু করবেন- 

১। ভাল ভাবে অনুশীলনের মাধ্যমে প্রস্তুতি নিবেনঃ

আপনি শুরুতেই যে কাজটি করবেন, সালাম, আদাব, ও অন্যন্য জাতীর প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ দিবেন। যে বিষয়ের উপর বক্তব্য দেবেন সেটি সম্পর্কে আগে অবগত হবেন। প্রায় অনেক বক্তা বক্তব্য দেওয়ার আগে অস্থিরতা ভোগে। তাই অস্থিরতা যাতে না হয়  সে জন্য আপনাকে বারবার নোটগুলো পড়ে নিতে হবে এবং খেয়াল করবেন। 

যাতে সব ঠিকঠাক আছ কিনা, প্রয়োজনে নিজের বক্তব্য ভিডিও করবেন এবং দেখবেন  কোথায় কোন সমস্যা আছে কিনা যদি না থাকে তাহলে আপনার বন্ধুকে দেখতে বলবেন, এবংসমালোচনা করতে বলবেন। এভাবে কয়েকটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করলে দেখবেন আপনার জড়তা একেবারেই দুর হয়ে গেছে। https://daliatista.com/                         

২। বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন ?

আপনাকে উপস্থিত বক্তৃতা শুরু করার আগে প্রথম যে কাজটি করতে হবে সেটি হলো কাগজে বা ব্যানারে যে লেখা আছে সে দিকে লক্ষ্য করা যাবেনা।

এটি করলে দর্শকের আকর্ষন সংযোগে ব্যাঘাত হবে। তাই আপনাকে দর্শকের দিকে তাকিয়ে আপনার বক্তব্য দিতে হবে। তাহলে দেখবেন,সবাই আপনার দিকে নজর দিচ্ছে। 

৩। বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন-শুরুতেই দর্শকের মনোযোগ আকর্ষণ করাঃ

আপনি যদি দর্শকের মনোযোগ আকর্ষণ  করতে চান তাহলে আপনাকে যে  বিষয়টি করতে হবে সেটি হল কোন অসাধারণ উক্তি এবং চমকপ্রদ তথ্য দিতে পারেন তাহলে দেখবেন দর্শক আপনার দিকে আকর্ষণ ও মনোযোগ সহকারে শুনছে। 

বক্তব্য শেষ করার সময় আপনি বক্তব্য শুরু বিষয়বস্তু সম্পর্কে আবারো অবগত করে শেষ করবেন। তাহলে দর্শক অবশ্যই প্রতিপাদ্য বিষয়টি মনে রাখবেন।

৪। বক্তব্যর বিষয়বস্তু যেভাবে সাজিয়ে নেবেনঃ

বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন

আপনি বক্তব্য দেওয়ার পূর্বেই আপনাকে বক্তব্যের বিষয়বস্তু সম্পর্কে অবগত হতে হবে এবং বক্তব্যের ধাপগুলো লিখে রাখতে হবে প্রথমে আপনাকে বক্তব্যের বিষয়বস্তুটুকু আয়ত্ব করতে হবে। https://bn.wikipedia.org/

 আপনি যে দিকটি  বক্তব্য দিতে চান তা খাতায়  লিপিবদ্ধ করে রাখতে হবে।  আপনাকে কমপক্ষে ৩০ থেকে ৪০ সেকেন্ড আকর্ষণ করার দিকে জোর দিতে হবে।

৫। অনেক সময় দর্শক বুঝে বক্তব্য দেওয়াঃ

আপনি বক্তব্য দেওয়ার আগেই কাদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দিচ্ছেন সে ব্যাপারে আপনাকে অবগত হতে হবে, কারণ আপনি কোন ধরনের শব্দ বলবেন, কি ধরনের তথ্য দিবেন ,বক্তব্যর ধরন গুলি কি রকম হবে সে সম্বন্ধে আপনার ভালো ধারণা থাকা একান্ত প্রয়োজন।

৬।  কিভাবে কণ্ঠস্বর যথাযথ ব্যবহার করবেনঃ

আপনি বক্তব্য দিচ্ছেন কি দিচ্ছেন কিভাবে বলতেছেন সেটাও আপনাকে সমান গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ কথা বলার সময় কখন গলার স্বর ওটাতে হবে এবং কখন নামাতে হবে সে ব্যাপারে ওয়াকিবহাল থাকবেন।  

৭। কিভাবে নিজের ব্যক্তিত্বকে বক্তব্যের মাঝে ফুটিয়ে তুলবেন?

আপনাকে বক্তব্য দেওয়ার সময় নিজের মতো করে কথা বলতে হবে।  কখনোই শক্ত মন নিয়েই বক্তব্য দেবেন না। আপনি যখন  সাবলীলভাবে কথা বলতে পারবেন যখন দেখবেন দর্শকরা আপনার কথা বিশ্বাস করবে। আর তখনই আপনার বক্তব্য সার্থক হবে।

 ৮। বক্তব্য কিভাবে শুরু করবেন – কৌতুক ও গল্পের মাধ্যমে দর্শককে আকৃষ্ট করাঃ

আপনি বক্তব্য দেওয়ার সময় যদি কৌতুক অথবা গল্পের মাধ্যমে বলতে পারেন তাহলে দেখবেন দর্শক আপনার দিকে আকৃষ্ট হচ্ছে এবং নীরবে আপনার কথাগুলো শুনছে তবে মনে রাখতে হবে আপনাকে সামঞ্জস্যপূর্ণ গল্প বা  কৌতুক বলতে হবে।

৯।  কিভাবে দর্শকের মতামত  গুরুত্ব দিবেনঃ

বক্তব্য দেওয়ার সময় দর্শকের দিকে নজর রাখতে হবে এবং তাদের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। প্রয়োজনে আপনাকে বক্তব্য কিছু পরিবর্তন আনতে হবে।  এজন্য  গদ বাধা বক্তব্য দিলে আপনি আগ্রহী শ্রোতাদের মনোযোগ দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারবেন না।

১০।  বক্তব্য দেওয়ার সময় প্রযুক্তিগত  যন্ত্রাংশের দিকে খেয়াল রাখাঃ

আপনি যখন বক্তব্য দিবেন কিভাবে দিচ্ছেন, কেমন করে দিচ্ছেন, দশকরা কিভাবে শুনতে পারছে, অথবা প্রযুক্তিগত বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে কি না  সে দিক থেকে আপনাকে নজর দিতে হবে । প্রয়োজনে আপনাকে  প্রযুক্তির যে অপারেটর তার সাথে সংযোগ স্থাপন করবেন, মনে রাখবেন বক্তব্য দেওয়ার সময় যদি আপনার কণ্ঠস্বর পরিবর্তন কিংবা অন্যরকম শব্দয়ন হয় তাহলে দেখবেন  দর্শকরা আপনার কথা শোনার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে।

সমাপানীঃ উপরিক্ত  বক্তব্য দেওয়ার জন্য যে, সমস্ত টেকনিক উপস্থাপন করা হলো আশা করি আপনারা ভালোভাবে প্র্যাকটিস করলে অবশ্যই কামিয়াবি হবেন। কারণ আপনার কাছে কেউ সঠিক বক্তব্যর আশা করে না। তবে বক্তব্য তৈরি করার পেছনে আপনাকে যথেষ্ট সময় এবং প্র্যাকটিস করতে হবে । তাহলে দেখবেন আপনার কথাগুলো অনেক সাবলীল ও স্বাচ্ছন্দ পূর্ণ বয়ে নিয়ে আসবে।

admin

মোঃ শফিকুল ইসলাম লেবু (Lecturer) ডালিয়া, ডিমলা, নীলফামারী। আমি বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে কন্টেইন ও ব্লগিং পোষ্ট করে থাকি, এ ব্যাপারে পাঠকগন মতামত দিলে - যথাসম্ভব উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *