সংবাদ সমাচার

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা- দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে চালু হলো বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের জন্য সার্বজনীন পেনশন। এটি মূলত ২০১৭-১৮ অর্থবছর থেকেই প্রতিবারই বাজেটের সময় বলা হয়ে থাকে সার্বজনীন ব্যবস্থা সকল নাগরিকের জন্য সুরক্ষার ব্যবস্থা হবে কিন্তু তা বরাবরের পেছাচ্ছিল।

অবশেষে ১৭ আগস্ট ২০২৩ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা শুভ উদ্বোধন করেন। এই সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় বাংলাদেশের ১৮ বছর থেকে ৫০ বছর বয়সী নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত করা হলো। বাংলাদেশের বয়স্ক নাগরিকদের জন্য তাদের জীবনের সুরক্ষা দিতে সরকার এ ব্যাপারে একটি সুনির্দিষ্ট একটি আইন পাস করেছেন।

যা পেনশন ভোগীদের সুরক্ষা ব্যবস্থা কার্যকর করবে।  বর্তমান দেশে প্রায় ৬ কোটি কর্মজীবী মানুষ রয়েছে যার মধ্যে ৮০ শতাংশের বেশি কর্মযোগে কাজ করে থাকেন বেসরকারি  খাতে।  আর এই সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় আপাতত চারটি ধাপে চালু করছে সরকার-https://www.prothomalo.com/

 ১।  প্রবাশ (যে সমস্ত নাগরীক বিদেশে থাকে)

২।  প্রগতি (বেসরকারী কর্মচারী প্রতিষ্ঠান)

 ৩। সুরক্ষা (স্বকর্ম ও অ-প্রাতিষ্ঠানিক কর্মী)

 ৪। সমতা (স্বল্প আয়ের কর্মী)

এর সুবিধা হচ্ছে নাগরিকদের কোন ঝামেলা ছাড়া তাদের টাকা জমা প্রদান ও পরবর্তিতে তাদের একাউন্টে টাকা উত্তোলন  করতে পারবে। নিম্নে সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার যাবতীয় তথ্য তুলে ধরা হলো-

সার্বজনীন-পেনশন

  • বাংলাদেশের ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী সকল  কর্মক্ষম নাগরিক এই পেনশন অবস্থায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন।
  •  পেনশনভোগিরা আজীবন  অর্থাৎ মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত এই সুবিধা ভোগ করতে থাকবে।
  • এনআইডি কার্ড তথা জাতীয় পরিচয় পত্র  উপর ভিত্তি করে নাগরিকদের এই সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার একাউন্ট খুলতে পারবে।
  •  সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা আপাতত প্রাথমিকভাবে ইচ্ছাধীন থাকবে। এবং পরবর্তীতে সকল নাগরিকের বাধ্যতামূলক সিদ্ধান্ত  গ্রহণ করা হবে।
  •  সর্বনিম্ন মাসিক চাঁদার হার নির্ধারণ থাকবে, প্রবাসীরা ত্রিমাসিক চাঁদা দিতে পারবে।
  • পেনশন ভোগিরা বছরে ন্যূনতম  বার্ষিক চাঁদা জমা নিশ্চিত করবে, অন্যথায় তার চলমান হিসাব সাময়িকভাবে বন্ধ করা হবে।  পরবর্তীতে অ্যাকাউন্ট সচল করার জন্য বকেয়া জমা করতে হবে।
  • তবে সরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কোন কর্মকর্তার কর্মচারী এই সার্বজনীন ব্যবস্থার বাহিরে থাকবেন পরবর্তীতে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষ নিবে।
  • উল্লেখ্য যে এই সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় কোন নাগরিক টাকা জমা করার পর পরবর্তীতে সমুদয় টাকা উত্তোলন করার কোন ধরনের সুযোগ থাকবে না। তবে আবেদনের প্রেক্ষিতে মোট টাকা জমা দানের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ হারে ঋণ হিসেবে নিতে পারবে যা পরবর্তীতে সুদসহ দিতে হবে।
  •  ধরে নেন,  চাঁদা প্রদানকারী ১০ বছর চাঁদা দেওয়ার আগে মারা গেলে জমা করা অর্থ লাভ সহ তার নমিনিকে প্রদান করা হবে।
  • এই সার্বজনীন পেনশন স্থানান্তরযোগ্য এবং অত্যন্ত সহজ করা হয়েছে যদি কোন কর্মী চাকরি পরিবর্তন করে তাহলে তার হিসাব  অবসর সুবিধা অব্যাহত থাকবে।

নিম্ন  আয়ের নাগরিকদের পেনশন কর্মসূচিতে মাসিক চাঁদার একটি বড় অংশ সরকার অনুদান হিসেবে দিতে পারে।

 নিম্নে সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার চাঁদার হার পরিমাণ চার্ট আকারে তুলে ধরা হলো আশা করি আপনাদের কাজে লাগবে। https://daliatista.com/

সার্বজনীন-পেনশন

প্রবাস স্কিমঃ

মাসিক চাঁদার হার ৫,০০০ ৭,৫০০ ১০,০০০
চাঁদা প্রদানের মোট সময় (বছরে) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা)
৪২ ১,৭২,৩২৭ ২,৫৮,৪৯১ ৩,৪৪,৬৫৫
৪০ ১,৪৬,০০১ ২,১৯,০০১ ২,৯২,০০২
৩৫ ৯৫,৯৩৫ ১,৪৩,৯০২ ১,৯১,৮৭০
৩০ ৬২,৩৩০ ৯৩,৪৯৫ ১,২৪,৬৬০
২৫ ৩৯,৭৭৪ ৫৯,৬৬১ ৭৯,৫৪৮
২০ ২৪,৬৩৪ ৩৬,৯৫১  ৪৯,২৬৮
১৫ ১৪,৪৭২ ২১,৭০৮ ২৮,৯৪৪
১০ ৭,৬৫১ ১১,৪৪৭ ১৫,৩০২

প্রগতি স্কিমঃ

মাসিক চাঁদার হার ২,০০০ ৩,০০০ ৫,০০০
চাঁদা প্রদানের মোট সময় (বছরে) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা)
৪২ ৬৮,৯৩১ ১,০৩৩৯৬ ১,৭২,৩২৭
৪০ ৫৮,৪০০ ৮৭,৬০১ ১,৪৬,০০১
৩৫ ৩৮,৩৭৪ ৫৭,৫৬১ ৯,৫৯৩৫
৩০ ২৪,৯৩২ ৩৭,৩৯৮ ৬২,৩৩০
২৫ ১৫,৯১০ ২৩,৮৬৪ ৩৯,৭৭৪
২০ ৯,৮৫৪ ১৪,৭৮০ ২৪,৩৩৪
১৫ ৫,৭৮৯ ৮,৬৮৩ ১৪,৪৭২
১০ ৩,০৬০ ৪৫৯১ ৭,৬৫১

সুরক্ষা স্কিমঃ

মাসিক চাঁদার হার ১,০০০ ২,০০০ ৩,০০০ ৫,০০০
চাঁদা প্রদানের মোট সময় (বছরে) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা) মাসিক পেনশন (টাকা)
৪২ ৩৪,৪৬৫ ৬৮,৯৩১ ১,০৩৩৯৬ ১,৭২,৩২৭
৪০ ২৯,২০০ ৫৮,৪০০ ৮৭,৬০১ ১,৪৬,০০১
৩৫ ১৯,১৮৭ ৩৮,৩৭৪ ৫৭,৫৬১ ৯,৫৯৩৫
৩০ ১২,৪৬৬ ২৪,৯৩২ ৩৭,৩৯৮ ৬২,৩৩০
২৫ ৭,৯৫৫ ১৫,৯১০ ২৩,৮৬৪ ৩৯,৭৭৪
২০ ৪,৯২৭ ৯,৮৫৪ ১৪,৭৮০ ২৪,৬৩৪
১৫ ২,৮৯৪ ৫,৭৮৯ ৮,৬৮৩ ১৪,৪৭২
১০ ১,৫৩০ ৩,০৬০ ৪,৫৯১ ৭,৬৫১

সততা স্কিমঃ

মাসিক চাঁদার হার ১,০০০ টাকা 

(চাঁদাদাতা ৫০০টাকা+সরকারী অংশ ৫০০ টাকা)

চাঁদা প্রদানের মোট সময় (বছর) মাসিক পেনশন (টাকা)
৪২ ৩৪,৪৬৫
৪০ ২৯,২০০
৩৫ ১৯,১৮৭
৩০ ১২,৪৬৬
২৫ ৭,৯৫৫
২০ ৪,৯২৭
১৫ ২,৮৯৪
১০ ১,৫৩০

উপসংহারঃ সবাইকে আমার পোষ্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ

admin

মোঃ শফিকুল ইসলাম লেবু (Lecturer) ডালিয়া, ডিমলা, নীলফামারী। আমি বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে কন্টেইন ও ব্লগিং পোষ্ট করে থাকি, এ ব্যাপারে পাঠকগন মতামত দিলে - যথাসম্ভব উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *